মিমি সুপার মার্কেটের ২৫৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির মামলা

Chattala24
  • 118
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    118
    Shares

নগরীর অভিজাত বিপনি বিতান মিমি সুপার মার্কেটের ২৫৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগে মামলা করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এর ভ্যাট গোয়েন্দা বিভাগ। আজ রবিবার (২৭ শে সেপ্টেম্বর) ভ্যাট নিবন্ধন না করা, প্রকৃত বিক্রয় অনুযায়ী রিটার্ন ও ভ্যাট না দেয়া এবং দৃশ্যমান স্থানে ভ্যাট সনদ ঝুলিয়ে না রাখার অভিযোগে আজ রবিবার (২৭শে সেপ্টেম্বর) এসব মামলা হয়।

ভ্যাট গোয়েন্দা সূত্র জানায়, আইনের বিধান অনুসারে নিবন্ধন গ্রহন না করায় মার্কেটের ২০৩টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। একইসাথে নিবন্ধিত ৬০টির মধ্যে ৫০টি প্রতিষ্ঠান নিবন্ধন সনদ ঝুলিয়ে না রাখায় ভ্যাট আইনে মামলা করা হয়েছে।

অনিবন্ধিত ২০৩টি মামলা দায়েরের অভিযোগের পাশাপাশি ব্যবসার শুরু থেকে তাদের প্রকৃত খরচের ভিত্তিতে পূর্বের ফাঁকিকৃত ভ্যাট হিসাব করে বকেয়া ও মাসিক ২ শতাংশ হারে সুদসহ জরিমানা আদায়ের জন্য চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনারকে অনুরোধ করা হয়েছে।

সুত্রে জানা যায়, উপ-পরিচালক তানভীর আহমেদের নেতৃত্বে ভ্যাট গোয়েন্দা দল গত ৭ সেপ্টেম্বর মিমি সুপার মার্কেটে জরিপ কার্যক্রম পরিচালনা করে। সরজমিনে দেখা যায়, অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নতুন ভ্যাট আইনের অন্তর্ভূক্ত হয়নি। অল্প সংখ্যক প্রতিষ্ঠান ভ্যাট নিবন্ধন নিলেও বেশিরভাগ আইন প্রতিপালন করছে না। মার্কেটে ২৬৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে নতুন আইনে নিবন্ধিত হয়েছে মাত্র ৬০টি। অবশিষ্ট ২০৩টির নিবন্ধন নেই। তারা দীর্ঘদিন ধরে ভ্যাটও দেয় না। এরা ক্রেতার নিকট থেকে ভ্যাট আহরণ করলেও তা সরকারি কোষাগারে জমা দেয় না। ভ্যাট গোয়েন্দাদের সুত্রমতে, চট্টগ্রামের বড় শপিংমলের দোকানগুলোর মধ্যে ৭৮ ভাগই ভ্যাট দেয় না; দেশের অন্যান্য বিপনি বিতান সহ খুচরা পর্যায়েও এই চিত্র বিরাজ করছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *