ফটিকছড়িতে লকডাউনের প্রথম দিনে ঢিলেঢালা ভাব

  |  Wednesday, June 23rd, 2021 |  2:55 pm

অনেকটা ঢিলেঢালাভাবেই ফটিকছড়িতে চলছে লকডাউন। দোকানপাট বন্ধের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও মানা হচ্ছে না নির্দেশনা।

আন্তঃজেলা সড়ক খোলা থাকায় যান চলাচলও রয়েছে স্বাভাবিক। লকডাউনে সরকারি বিধি-নিষেধ তদারকিতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মাঠে দেখা না গেলেও সচেতনতা তৈরিতে মাইকিং করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার (২৩ জুন) ফটিকছড়ি উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও বিভিন্ন ইউনিয়নে নেই কোনো সচেতনতা। খোলা রয়েছে দোকানপাট, চলছে বিকিকিনিও। এছাড়া সড়ক চালু থাকায় রাস্তায় চলাচল করছে সিএনজি অটোরিকশা, মোটরসাইকেল। বিভিন্ন প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া মানুষও সহজে যাতায়াত করছেন এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায়। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হলেও সকাল থেকে পুলিশ ছাড়া মাঠে দেখা যায়নি কোনো কর্মকর্তাকে।

ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সায়েদুল আরেফিন বলেন, সব এলাকায় মাইকিং চলছে। সকলে নির্দেশনা মানছে কিনা তা তদারকি করতে মাঠে নামছে উপজেলা প্রশাসন। সরকারি নির্দেশনা অবশ্যই মেনে চলতে হবে। যেহেতু এ উপজেলার মধ্যদিয়ে আন্তঃজেলা সড়ক রয়েছে তাই যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ করা যাচ্ছে না। তবে প্রতিটি যানবাহনের দরজা বন্ধ করে চলাচল করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এমনকি লকডাউন ঘোষণাকৃত এলাকায় কোনো যাত্রী নামানো ও উঠানো যাবে না।

এর আগে ২২ জুন করোনা প্রতিরোধে গঠিত জেলা কমিটির সমন্বয় সভায় ফটিকছড়িকে ‘লকডাউন’ করার সিদ্ধান্ত নেয় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। এতে বলা হয়, কাঁচাবাজার খোলা থাকবে সকাল ৭টা থেকে বেলা ১১টা এবং বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। বাকি সময় বন্ধ থাকবে। ওষুধের দোকান লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে। সকল ক্লাব, কমিউনিটি সেন্টার বন্ধ থাকবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে, শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে মসজিদে নামাজ আদায় করা যাবে। লকডাউন থাকবে ৩০ জুন পর্যন্ত।