রোটারীর ‘কোভিট ফ্রন্টলাইনার’ সম্মাননা পেলেন ডাঃ বিদ্যুৎ বডুয়া

  |  Sunday, June 27th, 2021 |  4:53 pm

রোটারী ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ এর ” কোবিড ১৯ ফ্রন্টলাইনার হিসেবে সম্মাননা পেয়েছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের প্রধান নির্বাহী ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া।

শনিবার (২৬) জুন চট্টগ্রামের অভিজাত হোটেল রেডিসন ব্লু’র বলরুমে রোটারী ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ কনফারেন্সের শেষ দিনে কোভিড ১৯ মহামারীতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে এ সম্মাননা দেয়া হয়েছে।

রোটারী ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮২ এর সকল ক্লাব প্রতিনিধির উপস্থিতিতে রোটারী ডিস্ট্রিক্ট গভর্নর ড. বেলাল উদ্দিন আহমেদ তাকে এই সম্মাননা প্রদান করেন। দুইদিন ব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ এম পি।

উল্লেখ্য , ২০২০ সালে করোনাকালে বেসরকারি উদ্যোগে গড়ে উঠা দেশের প্রথম ফিল্ড হাসপাতাল “চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতাল ”, ২০২০ সালের ২১ এপ্রিল করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান শুরু করে। চট্টগ্রাম শহরে নাভানা গ্রুপের পরিত্যক্ত গ্যারেজকে ১৪ দিনের মধ্যে সাজিয়ে গুছিয়ে কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য তৈরি করেছিলেন ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া।

সোশ্যাল মিডিয়ায়কে সম্বল করে সাধারণ জনগণকে সাথে নিয়ে ১৬০০০ বর্গফুটের ফিল্ড হাসপাতালে মানবিক ভলান্টিয়ারদের সহযোগিতায় ১৪০ দিন রোগীদের বিনামূল্যে সেবা প্রদান করা হয় । বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের মানবিক কার্যক্রম সমাদৃত হয়েছে।

১৪০ দিন টানা চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের রোগীদের সাথে ডাঃ বিদ্যুৎ বড়ুয়া ও তার ভলান্টিয়াররা হাসপাতালে অবস্থান করে নজির সৃষ্টি করেন। প্রায় ১৬০০ এর অধিক রোগীদের সেবা প্রদান করা হয় হাসপাতালটি থেকে ।

করোনাকালে ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া অবদানের জন্য ইতিমধ্যে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্য থেকে “চিকিৎসক রত্ন” , ওয়াল্টন গ্রুপের “হেলথ হিরো” ধ্রুবতারা ফাউন্ডেশনের “আইডিয়েল ডক্টর অ্যাওয়ার্ড” ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন থেকে সম্মাননা গ্রহণ করেছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এম বি বিএস পাশ করে সুইডেনের বিখ্যাত কারোলিন্সকা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম ডি ও এম পিএইচ ডিগ্রি অর্জন করেন বিদ্যুৎ বড়ুয়া। তিনি বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন ) এবং অক্সফাম বাংলাদেশের কোভিড-১৯ কনসালট্যান্ট হিসেবে কাজ করছেন।

এছাড়া তিনি চট্টগ্রামের বাসায় করোনা রোগীদের সেবার জন্য ‘হোম হাসপাতাল’ নামে পরিপূর্ণ হাসপাতাল সার্ভিসের উদ্যোক্তা ও নির্বাহী।