বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে লাঞ্ছনা, মুচলেকা দিয়ে পার পেলেন চালক

  |  Monday, June 28th, 2021 |  12:56 pm

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) এক ছাত্র ভাড়া নিয়ে বিতণ্ডার একপর্যায়ে সিএনজি অটোরিকশা চালকের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন।

এ ঘটনার খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) মো. আনোয়ার হোসেন শামীম ওই চালককে খুঁজে বের করে সতর্ক করেন।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী এ বিষয়ে কোনও অভিযোগ না করায় মুচলেকা নিয়ে সেই অটোরিকশা চালককে ছেড়ে দেওয়া হয়।
জানা গেছে, গত শনিবার (২৬ জুন) রাত ৮টার দিকে টিউশন শেষে সিএনজি অটোরিকশাযোগে বাসায় ফিরছিলেন চুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র মনির হোসেন। বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গৌরিশঙ্কর হাট এলাকায় নেমে যাওয়ার সময় চালক মো. নিজাম উদ্দিন (৩৬) তার কাছে দ্বিগুণ ভাড়া দাবি করে। অতিরিক্ত ভাড়া দিতে অপারগতা জানালে মনিরকে মারধর করা হয়। ভুক্তভোগী ছাত্রের বন্ধুদের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে তৎপর হন সহকারী পুলিশ সুপার।

ওই এলাকার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ যাচাই-বাছাই এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সড়ক পরিবহন সমিতির সঙ্গে বৈঠকের মাধ্যমে অভিযুক্তের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হন তিনি। রোববার (২৭ জুন) দুপুরে অভিযুক্ত সেই অটোরিকশা চালককে এএসপি অফিসে হাজির করা হয়। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়ে ওই ঘটনার বিষয়ে তার কোনও অভিযোগ না থাকার কথা জানালে মুচলেকা নিয়ে অভিযুক্ত চালককে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সহকারী পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, ঘটনার পরপরই চুয়েটের একাধিক শিক্ষার্থী মুঠোফোনে আমাকে বিষয়টি জানান। রাতেই অভিযুক্ত চালককে শনাক্ত করা হয়। কিন্তু ভুক্তভোগীর অভিযোগ না থাকায় এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তারপরও এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয়, সেজন্য তাকে সতর্ক করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যানবাহন চালক-শ্রমিকসহ স্থানীয়দের সঙ্গে ধারাবাহিক বৈঠক ও উদ্বুদ্ধকরণ সভা অব্যাহত রাখবে পুলিশ।