শিক্ষাগুরুর মর্যাদা

  |  রবিবার, অক্টোবর ১১, ২০২০ |  ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ

শিক্ষাগুরুর মর্যাদা

দেশের রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদার ক্রম তালিকায় একজন অবসর প্রাপ্ত কলেজ শিক্ষকের স্থান নেই বললেই চলে৷ কিন্তু সেই শিক্ষক যদি হয় নিজের কলেজ জীবনের শিক্ষক সেক্ষেত্রে শিষ্য যতোই উচুপদে থাকুক না কেন শিক্ষাগুরুর মর্যাদা সকল ক্রম বিন্যাসের উর্ধে।

আজ এমনই দৃশ্যের অবতারণা হয়েছে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে৷ শিক্ষাগুরুকে সামনে পেয়ে কদমবুসি করতে বিলম্ব করেননি তথ্যমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড.হাসান মাহমুদ৷ জানা গেছে, তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ নগরীর হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন৷ সেই সময় সুমঙ্গল মৎসুদ্দি বড়ুয়ার ছিলেন মন্ত্রীর কলেজ শিক্ষক৷ একজন প্রবীন শিক্ষকের প্রতি তাঁর একজন সাবেক ছাত্রের এমন সম্মান প্রদর্শন বর্তমান প্রজন্মের জন্য একটি বার্তা৷ আজকাল অনেকেই ছাত্রাবস্থায় শিক্ষকদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে না, সেখানে একজন মন্ত্রী এখনো তাঁর শিক্ষকের কদমবুসি করেন৷

FB IMG 1602350954902

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাওহীদুল কবির নামের একজন ছবিটি শেয়ার করে লিখেছেন,”নির্বাচনের আগেও আমাদের প্রতিপক্ষ প্রার্থীকে জনগণের সাথে হ্যান্ডশেক করতেও ইতস্তত করতে দেখেছি, গ্রামের মানুষের হাত থেকে ময়লা লাগবে দেখে। করলেও হাতে টিস্যু লাগিয়ে রাখতে বা মুছতে দেখেছি তৎক্ষনাৎ। এই করোনা আতঙ্কের মধ্যেও ছবিতে যিনি বয়োজ্যেষ্ঠ ব্যক্তিকে সালাম করছেন ইনি ভোটের আগের কোন প্রার্থী নন; রাষ্ট্রের মুখপাত্র গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মাননীয় মন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালী প্রথম সারির কেন্দ্রীয় নেতা, বীর চট্টলার অহঙ্কার প্রিয়নেতা ড. হাসান মাহমুদ। “