ভুঁজপুরে স্বামীর লাথিতে স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

64

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুর থানা এলাকায় খতিজা আক্তার (৩৮) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

নিহত খতিজা আক্তার স্থানীয় বাসিন্দা মো. সেলিম প্রকাশ টুনা’র (৪৫) স্ত্রী। খাতিজা আক্তারের দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তান রয়েছে। এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার নারায়ণহাট ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের জমিদার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে খতিজাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মঙ্গলবার সকালে ভূজপুরে থানা পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে লাশ উদ্ধার করে।

শ্বশুরবাড়ীর লোকজন, স্বামী-শ্বাশুড়ি খতিজাকে পিটিয়ে হত্যা করার পর ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের ভাই আনোয়ার।

এ বিষয়ে ভূজপুর থানার ওসি শেখ আবদুল্লাহ জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন ও ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খতিজার মা অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের পর থেকে আমার মেয়েকে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ীর লোকজন নির্যাতন করে আসছে। নির্যাতনের বিষয়টি বলে বোঝাতে পারবো না।তার স্বামীর উপর্যুপরি লাথিতে খতিজার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে দাবি করেন তার মা।এরপর মেয়েকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মেরেছে। তারা নিজেরা মেয়েকে নাজিরহাট মেডিকেলে নিয়ে এসে বলছে মেয়ে নাকি আত্মহত্যা করেছে। প্রশাসনের কাছে এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার চাই।