প্রয়াত নেতা ডা. জাহাঙ্গীর সাত্তার টিংকুর ৫৭ তম জন্মদিন

337

প্রয়াত নেতা ডা. জাহাঙ্গীর সাত্তার টিংকুর ৫৭ তম জন্ম বার্ষিকী আজ। নব্বইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের প্রথম সারির এই নেতা ১৯৬৩ সালের ১০ নভেম্বর চট্টগ্রামের রাউজান কদলপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মরহুম এম এ সাত্তার।

১৯৮৯ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন তিনি। স্কুল জীবনেই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে হাতেখড়ি তার। চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত প্রতিনিধি ছিলেন তিনি। ১৯৮৯-৯০ মেয়াদে বাকশাল সমর্থিত জাতীয় ছাত্রলীগের (পরবর্তীতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাথে একীভূত হয়) সর্বশেষ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

PicsArt 11 10 01.00.02 copy 1080x564
       ৯০ এর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে বক্তৃতা প্রদান কালে প্রয়াত ডা. জাহাঙ্গীর সাত্তার টিংকু

স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের সময় ‘সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য’ গঠনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তিনি। পরে ১৯৯১ সালে মহিউদ্দিন আহম্মেদ ও আবদুর রাজ্জাকের নেতৃত্বাধীন বাকশাল আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত হলে তিনিও আওয়ামী লীগে যোগ দেন।তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য এবং চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কার্যকরী কমিটির সদস্য।

PicsArt 11 10 01.02.20 copy 1080x564
                               চট্টগ্রাম কলেজে বন্ধুদের সাথে টিংকু

রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক, শিক্ষা, সেবা, ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গেও জড়িত ছিলেন টিংকু। এক সময় চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রিকেট দলের ওপেনিং ব্যাটসম্যান ছিলেন তিনি। চট্টগ্রাম সমিতির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও কর্মজীবনে একটি নির্মাণ সংস্থার চেয়ারম্যান ছিলেন।

২০১০ সালের নভেম্বরে টিংকুর মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়লে তাকে যুক্তরাষ্ট্র ও সিঙ্গাপুরে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। কিন্তু পরবর্তীতে তা ক্যান্সারে রূপ নেয়। ২০১২ সালের জানুয়ারিতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ভর্তি করানো হয়েছিল রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে। সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গিয়েছিলেন তিনি।