সিলেটে ট্রাক-প্রাইভেট কার সংঘর্ষঃ সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ৩

94

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় ট্রাকে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৩ যাত্রী নিহত হয়েছেন। নিহত তিনজনই প্রাইভেটকারের যাত্রী। দুর্ঘটনার সময় বিস্ফোরিত সিলিন্ডার উড়ে গিয়ে এক পথচারীর ওপর গিয়ে পড়ে। এতে ওই পথচারী গুরুতর আহত হন।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কে উপজেলার হেতিমগঞ্জে পশ্চিমবাজার মোল্লাগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজনের মধ্যে দুইজনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন বিয়ানীবাজারের চারখাই এলাকার হাজী আব্দুল জলিলের ছেলে সুনাম মিয়া (২৪) ও একই এলাকার মৃত কুনু মিয়ার ছেলে রাজন (২২)। এছাড়া নিহত আরেক যাত্রীর পরিচয় যাওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে একটি প্রাইভেটকার ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাইভেটকারটির গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়। এসময় আগুনে তিন জনের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে দমকল বাহিনীর একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে আধা ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে প্রাইভেটকার থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

সিলেটের গোলাপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী জানান, সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রাকটি ওই স্থানে দাঁড়ানো ছিলো। এ সময় পেছনে থেকে যাওয়া দ্রুতগতির প্রাইভেটকারটি ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাইভেটকারের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে কারটি ভস্মিভূত হয়ে ঘটনাস্থলে চালকসহ ৩ যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান। খবর পেয়ে টহল পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। পরে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লুৎফর রহমান বলেন, দুর্ঘটনার পর বিস্ফোরিত সিলিন্ডার উড়ে গিয়ে এক পথচারীর ওপর পড়ে। এতে ওই পথচারী গুরুতর আহত হন। দুর্ঘটনায় আরও তিন জন দগ্ধ হয়েছেন। তারাও প্রাইভেটকারের যাত্রী ছিলেন।