প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায়, চার যুবক গ্রেফতার

  |  শনিবার, মার্চ ১৩, ২০২১ |  ১২:২৩ অপরাহ্ণ
প্রেমের

চুরি-ছিনতাইয়ে সুবিধা করতে না পেরে নারীদের দিয়ে প্রেমের ফাঁদে ফেলে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে পেশাদার অপরাধীদের কয়েকটি চক্র।

এ কৌশলে সম্প্রতি এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে জিম্মি করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনায় চার জনকে গ্রেফতারের পর এ ধরনের একটি চক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (১১ মার্চ) এসব তথ্য জানান বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রুহুল আমিন।

গ্রেফতার চার জন হলেন- মো. শহীদ আলম লেদু (৩০), জাহাঙ্গীর আলম (৩০), গিয়াস উদ্দিন (২৯) ও মো. রায়হান (২৮)।

পুলিশের ভাষ্য, গত ৫ মার্চ নগরের রাহাত্তারপুলের একটি নির্জন স্থানে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে আটকে রেখে অর্থ আদায় করতে জড়ো হন পেশাদার অপরাধী চক্রের কয়েকজন সদস্য।

মোবাইল ফোনে এক নারীর প্রেমের ফাঁদে ফেলে কৌশলে এই ব্যাংক কর্মকর্তাকে ডেকে আনা হয় নির্জন জায়গাটিতে। এরপর অনৈতিক সম্পর্ক ফাঁসের ভয় আর অস্ত্র দেখিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার কাছ থেকে আদায় করা হয় দুই লাখ টাকা।

ওই ব্যক্তির অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে চক্রটির চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রুহুল আমিন জানান, ব্যাংক কর্মকর্তা প্রথমে বিষয়টি গোপন রাখেন। বৃহস্পতিবার তিনি বাকলিয়া থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ। অভিযোগের সত্যতা পেয়ে অপহরণ করে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায় করা ছিনতাইকারী দলের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, এরা একটি সংঘবদ্ধ চক্রের সদস্য। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আমরা অন্তত ১০ জনের নাম পেয়েছি। কয়েকজন নারীও আছেন। প্রতারণার মাধ্যমে বিত্তবান লোকজনকে ফাঁদে ফেলে টাকা আদায় তাদের কাজ।

পুলিশ কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন জানান, এই চক্রের কয়েকজনের বিরুদ্ধে নগরের বিভিন্ন থানায় আরও মামলা আছে। গ্রেফতার চার জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে।

এ ধরনের আরও বেশকিছু চক্র প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের অর্থ হাতিয়ে নিলেও ভুক্তভোগীরা অভিযোগ না করায় অপরাধীরা পার পেয়ে যাচ্ছে বলে জানান ওসি মো. রুহুল আমিন