ফের মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ, শিক্ষক আটক

  |  বুধবার, মার্চ ১৭, ২০২১ |  ১:৩৯ অপরাহ্ণ

ফটিকছড়িতে ‘হযরত ইমাম এ- আজম আবু হানিফা (রা:) গাউসিয়া সুন্নিয়া হেফজ ও এতিমখানা’ নামের একটি মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় শিক্ষার্থীর বাবা বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. জাহাঙ্গীরকে (৩০) আটক করেছে ফটিকছড়ি থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শিক্ষার্থী মারধরের ঘটনাটি ঘটে গতকাল সোমবার ফটিকছড়ি উপজেলার পাইন্দং ইউনিয়নের হযরত ইমাম এ- আজম আবু হানিফা (রা:) গাউসিয়া সুন্নিয়া হেফজ ও এতিমখানায়।

ওসি রবিউল আলম বলেন, কয়েকদিন আগে মোহাম্মদ রবিউল আলম নামে ৮ বছরের এক শিশুকে মারধর করে মাদ্রাসার একজন শিক্ষক। সোমবার শিশুটি অসুস্থ শুনে বাবা আব্দুল হাকিম মাদ্রাসায় গিয়ে শিশুটির শরীরে মারধরের চিহ্ন দেখতে পান। পরে বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলমকে মাদ্রাসা থেকে আটক করা হয়েছে।

এর আগে হাটহাজারী পৌর এলাকায় ‘মারকাযুল ইসলামিক অ্যাকাডেমি’ নামের হাফেজি মাদ্রাসায় আট বছর বয়সী এক ছাত্রকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল হয়। পরে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে হাটহাজারী থানা পুলিশ।