পড়ে যাওয়া বিমান দেখতে আলুক্ষেতেই বসল মেলা

  |  বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৮, ২০২১ |  ৫:১০ অপরাহ্ণ
বিমান

ইঞ্জিন বিকল হয়ে উড্ডয়নরত অবস্থায় রাজশাহীর তানোর উপজেলার দেবীপুর গ্রামে একটি বিমান আলুক্ষেতে পড়ে যায়. আর এ ঘটনা দেখতে শত শত মানুষ ভিড় জমায় ওই ঘটনাস্থলে। এ সুযোগে সেখানে বসেছে অস্থায়ী মুখরোচক খাবার দোকান। আর এতে সেখানে এক প্রকার মেলার পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

বাংলাদেশ ফ্লাইং ক্লাবের এস২ এজিজি সেনা ১৫২ মডেলের একটি প্রশিক্ষণ বিমানটি মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। তৎপরতা চালিয়ে বুধবার (১৭ মার্চ) রাতে পরে পড়ে থাকা বিমানটির ডানা ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ খুলে সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়।

প্রশিক্ষণ বিমান দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে দুই সদস্যের একটি কমিটি গঠনের কথাও জানিয়েছে রাজশাহী বিমান কর্তৃপক্ষ। ঢাকা থেকে ইতোমধ্যে দুই সদস্যের একটি টিমও রাজশাহীতে এসেছে।

এদিকে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, তানোর উপজেলার দেবীপুর গ্রামের আলুক্ষেতে দুর্ঘটনায় কবলিত বিমানের আশপাশ ঘিরে রাখা হয়েছে সুতা দিয়ে। তার অদূরেই বসেছে বিভিন্ন মুখরোচক খাবারের দোকান। বিমানটি দেখতে ভিড় করছেন শত শত লোকজন।

তারা দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসছেন। দর্শনার্থীদের কাছে অস্থায়ী খাবারের দোকানগুলো বিক্রি করছে বারোভাজা, চিপস ও কমল পানীয়সহ নানা পণ্য। অনেকে বিমানটির সঙ্গে ছবি, সেলফি তুলে পোস্ট করছেন নিজ নিজ ফেসবুক প্রোফাইলে। যা এরইমধ্যে ভাইরাল হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে তানোরের লালপুর এলাকায় আলুক্ষেতে বাংলাদেশ ফ্লাইং ক্লাবের এস২ এজিজি সেনা ১৫২ মডেলের প্রশিক্ষণ বিমানটি জরুরি অবতরণ করতে গিয়ে আছড়ে পড়ে।

বিমানটিতে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ফ্লাইং একাডেমির রাজশাহীর প্রশিক্ষক ও সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মাহফুজুর রহমান। তার সঙ্গে ছিলেন ক্যাডেট নাহিদ এরশাদ। দুর্ঘটনায় দুইজনই প্রাণে বেঁচে যান।

ইঞ্জিনের ত্রুটিতে পাইলট সেটিকে খোলা স্থানে জরুরি অবতরণের চেষ্টা করেন। কিন্তু অসমতল আলুক্ষেতে আছড়ে পড়ে উল্টে যায় বিমানটি।

তদন্ত কমিটির প্রধান অবসরপ্রাপ্ত উইং কমান্ডার এম এম আসাদুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনার শিকার পাইলট ও প্রশিক্ষণার্থীর সঙ্গে কথা বলেছেন তারা। এছাড়া বিমানের যন্ত্রাংশ পরীক্ষা করে দেখেছেন। তবে আরও কিছু বিষয় তদন্ত করে এর রিপোর্ট দেওয়া হবে।