প্রেমের টানে বাংলাদেশি কিশোরী ভারতে, পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে ফেরত

  |  শনিবার, মার্চ ২০, ২০২১ |  ১০:৫১ অপরাহ্ণ

প্রেমের টানে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার এক কিশোরী সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে চলে যাওয়ার পর তাকে ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) তাকে আটক করে। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) রাতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মাধ্যমে পুলিশের কাছে ফেরত দেয়া হয়েছে।

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পাররামরামপুর ইউনিয়নের উত্তর রহিমপুর গ্রামের এক দরিদ্র কৃষকের মেয়ে। শুক্রবার (১৯ মার্চ) সকাল সাড়ে ১১টায় বকশীগঞ্জ থানার পুলিশ কিশোরীকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছেন।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওসি শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার উত্তর রহিমপুর এলাকায় একটি মাজার রয়েছে। সেখানে বাংলাদেশি ও ভারতীয় বাসিন্দাদের যাতায়াত রয়েছে। কয়েক মাস আগে ওই মাজারে ওই কিশোরীর সঙ্গে ভারতীয় সীমান্তবর্তী একটি এলাকার যুবকের দেখা হয়। সেখান থেকে তাদের দুজনের মধ্যে পরিচয়। তারা দুজনে প্রায় ওই মাজারে এসে দেখা করতেন। এতে দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সম্পর্কের টানে ওই কিশোরী ভারতীয় যুবকের সঙ্গে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে চলে যায়।

তারা দুজন সীমান্ত পাড়ি দিয়ে সড়কে উঠলে, বিএসএফ তাদের দুজনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে ওই কিশোরী জানায় তার বাড়ি বাংলাদেশে। পরে বিএসএফ বিজিবির সঙ্গে যোগাযোগ করেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে বকশীগঞ্জ-কামালপুর সীমান্তে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে পুলিশের কাছে ওই কিশোরীকে ফেরত দেওয়া হয়। গত রাত থেকে ওই কিশোরী পুলিশি হেফাজতে ছিল। গতকাল শুক্রবার সকালে পুলিশ ওই কিশোরীকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।