স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যদেরও সম্পদের তথ্য চেয়েছে দুদক

Chattala24
  • 24
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    24
    Shares

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ২১ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ তাদের পরিবারের ৪৩ জনের সম্পদের তথ্য চেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন দুদকের সিনিয়র সচিব দিলোয়ার বখত।

প্রতিদিনই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে আসছে বিস্তর অভিযোগ। এসব অভিযোগের অনুসন্ধানে নেমে একের পর এক বেরিয়ে আসছে নানা তথ্য। দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাশাপাশি তাদের স্ত্রী-সন্তান ও স্বজনদের নামে বিপুল সম্পদের তথ্য মিলছে।

দুদক সচিব জানান, অনুসন্ধানে ২১ কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাশাপাশি তাদের স্বজনদের নামে মিলছে বিপুল সম্পদ। অনুসন্ধানে আরও অনেকের নাম বেরিয়ে আসবে বলেও জানান দুদক সচিব দিলোয়ার বখত।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হাজার কোটি টাকার কেরানি আবজাল, আর সবশেষ শতকোটি টাকার সম্পদের মালিক গাড়ি চালক আব্দুল মালেক। এমন দুর্নীতিগ্রস্তদের তালিকায় নাম এসেছে আরো ৪৪ জনের। তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের এমন বিপুল পরিমাণ সম্পদের তথ্য পেয়ে হতবাক দুদকও।

এরইমধ্যে কেরানি, অফিস সহকারি, গাড়ি চালকসহ ৪৫ জন কর্মচারীর অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদক। সবশেষ এদের ২১ জন কর্মচারী এবং তাদের স্ত্রীসহ মোট ৪৩ জনের সম্পদের হিসাব চেয়ে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। তাদের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে এসব কর্মচারীর রাজধানীতে নিজ নামে এবং স্ত্রীর নামে রয়েছে ফ্ল্যাট এবং প্লট। এছাড়া বেনামেও তাদের সম্পদ রয়েছে। যেসব সম্পদের কোনো বৈধ উৎস নেই।
শুধু কর্মচারী নয়, অনুসন্ধানে যাদের নাম আসবে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন দুদক সচিব। জানা গেছে, আগামি সপ্তাহে আরও কয়েকজন কর্মচারীর সম্পদের হিসাব চেয়ে নোটিশ পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *