লকডাউনের আগেই শপিংমলে উপচেপড়া ভিড়

  |  শনিবার, এপ্রিল ৩, ২০২১ |  ৯:০২ অপরাহ্ণ

প্রশাসনের নানা উদ্যোগের পরও স্বাস্থ্যবিধি মানতে এখনও উদসীন সাধারণ জনগণ। মাস্ক ছাড়াই নগরের বিভিন্ন শপিংমল এবং বাজারগুলোতে কেনাকাটা করছে সাধারণ মানুষ।

দেখে বোঝার উপায় নেই দেশে এই দিন আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজারেরও বেশি মানুষ।
সোমবার থেকে লকডাউনের খবর শুনে অনেকেই বেরিয়েছেন নিজের প্রয়োজনীয় কাজটি সারতে।

নগরের টেরিবাজারে শপিং করতে আসা সামশুল আলম নামে এক ব্যক্তি জানান, সোমবার থেকে সারাদেশ লকডাউনে যাচ্ছে। সময়টা এক সপ্তাহ বললেও কখন খুলবে তা বলা যায় না। তাই কিছু প্রয়োজনীয় কেনাকাটা সারতে শপিংয়ে আসতে হয়েছে।

শুধু শপিংমল নয় ৭ দিনের লকডাউনের খবরে মুদি ও কাঁচাবাজারেও ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। রিজিয়া পারভিন নামে এক নারী বলেন, সরকার ৭ দিনের জন্য লকডাউন দিয়েছে। এই ৭ বাসা থেকে বের হওয়া যাবে না। তাই প্রয়োজনীয় বাজার সদাই কিনে রাখছি।

প্রশাসনের নানা উদ্যোগের পরও স্বাস্থ্যবিধি মানতে এখনও উদসীন সাধারণ জনগণ। মাস্ক ছাড়াই নগরের বিভিন্ন শপিংমল এবং বাজারগুলোতে কেনাকাটা করছে সাধারণ মানুষ।

দেখে বোঝার উপায় নেই দেশে এই দিন আক্রান্ত হয়েছে ৫ হাজারেরও বেশি মানুষ।
সোমবার থেকে লকডাউনের খবর শুনে অনেকেই বেরিয়েছেন নিজের প্রয়োজনীয় কাজটি সারতে।

নগরের টেরিবাজারে শপিং করতে আসা সামশুল আলম নামে এক ব্যক্তি জানান, সোমবার থেকে সারাদেশ লকডাউনে যাচ্ছে। সময়টা এক সপ্তাহ বললেও কখন খুলবে তা বলা যায় না। তাই কিছু প্রয়োজনীয় কেনাকাটা সারতে শপিংয়ে আসতে হয়েছে।

শুধু শপিংমল নয় ৭ দিনের লকডাউনের খবরে মুদি ও কাঁচাবাজারেও ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। রিজিয়া পারভিন নামে এক নারী বলেন, সরকার ৭ দিনের জন্য লকডাউন দিয়েছে। এই ৭ বাসা থেকে বের হওয়া যাবে না। তাই প্রয়োজনীয় বাজার সদাই কিনে রাখছি।