আল্লামা শফীর মৃত্যু: হেফাজতের ৪৩ জনের নামসহ পিবিআইয়ের প্রতিবেদন

  |  মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৩, ২০২১ |  ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ

হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর ঘটনায় বর্তমান আমির জুনায়েদ বাবুনগরী, আজিজুল হক ইসলামাবাদীসহ ৪৩ জনের নাম উল্লেখ করে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ৪৩ আসামির মধ্যে এজাহারভুক্ত ৩১ জন, মামলার তদন্তে নতুন করে যুক্ত হয়েছে আরও ১২ জন। তবে ৪৩ আসামির মধ্যে নাম নেই রিসোর্ট কাণ্ডে আলোচিত মামুনুল হকের।

এজাহারভুক্ত আসামিরা হলেন- মাওলানা নাছির উদ্দিন মুনির, মাওলানা মীর ইদ্রিস, হাবিব উল্লাহ আজাদী, আহসান উল্লাহ, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, জাকারিয়া নোমান ফয়েজী, আব্দুল মতিন, মো. শহীদুল্লাহ, মো. রিজুয়ান আরমান, হাসানুজ্জামান, মো. এনামুল হাসান ফারুকী, মীর সাজেদ, জাফর আহমদ, মীর জিয়াউদ্দিন, মাওলানা আহম্মদ, মাওলানা মাহমুদ, আসাদুল্লাহ, জুবাইর মাহমুদ, হাফেজ জুনায়েদ আহমেদ, আনোয়ার শাহ, ছাদেক জামিল কামাল, কামরুল ইসলাম কাসেমি, মো. হাসান, ওবায়েদুল্লা ওবায়েদ, জুবাইর, মাওলানা মোহাম্মদ, আমিনুল হক, সোহেল চৌধুরী, মবিনুল হক, নাইমুল ইসলাম খান ও হাফেজ সায়েম উল্লাহ।

তদন্তে নতুন করে যুক্ত হওয়া ১২ জন হলেন- জুনায়েদ বাবুনগরী, মাওলানা শফিউল আলম, শিব্বির আহমেদ, আবু সাঈদ, হোসাইন আহমদ, তাওহীদ, এরফান, মামুন, আমিনুল, মাসুদুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম ও নুর মোহাম্মদ।

গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শিপলু কুমার দের আদালতে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শ্যালক মো. মইন উদ্দিন ৩৬ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেন